অতিমাত্রা; শ্লোক - ৪৬৭

অন্ধ ভক্তি প্রেম, বা অন্ধ ঘৃণা
উভয় গোঁড়ামী বলেই গণ্য হয়।
জনস্বার্থে উহা ক্ষতির কারণ
সমর্থন যোগ্য কোনটাই নয়।

পাদটীকা: অতিমাত্রায় সুমিষ্ট চিনি বা অতিমাত্রায় লবণ গ্রহণ যেমন ব্যক্তির স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণ বয়ে আনে, অনুরূপ কোন বিশেষ ব্যক্তিতে বা বিষয়ে মাত্রাতিরিক্ত প্রেম, বা মাত্রাতিরিক্ত ঘৃণা পোষণ করা, উক্ত ব্যক্তির মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতির কারণ বয়ে আনতে পারে। মোট কথা অতিরিক্ত কোন কিছুই ভালো নয়।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

অতিমাত্রা; শ্লোক - ৪৬৭


রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর; শ্লোক - ৪৬৬

জগৎ জোড়া খ্যাতি তাহার; 
তিনি কবি গুরু, বিশ্বকবি। 
সব্যসাচী ছিলেন; সঙ্গীতে, 
কবিতায়, আঁকতেন ছবি। 

পাদটীকা: কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন বহু গুনে গুণান্বিত এক জন শিল্পী, তিনি তার অমর সৃষ্টি কর্ম সমূহের কারণে মানুষের অন্তরে যুগ যুগ বেঁচে থাকবেন। 
- আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর; শ্লোক - ৪৬৬


রামমোহন রায়; শ্লোক - ৪৬৫

রাম সীতাকে আগুনে ঠেলেছে
রামমোহন নয়।
সতীদাহে সীতার ত্রাণ কর্তা,
রামমোহন রায়। 

পাদটীকা: রাজা রামমোহন রায় ছিলেন বাংলা নবজাগরণের অন্যতম পুরোধা ব্যক্তিত্ব। তৎকালীন রাজনীতি, জনপ্রশাসন, ধর্মীয় এবং শিক্ষাক্ষেত্রে তিনি উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছিলেন। রামমোহন রায় সবচেয়ে বেশি বিখ্যাত হয়েছেন, সতীদাহ প্রথা বিলুপ্ত করার প্রচেষ্টার জন্য।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

রামমোহন রায়; শ্লোক - ৪৬৫


ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর; শ্লোক - ৪৬৪

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরকে স্মরণ কর
নত মস্তক শ্রদ্ধা প্রাণ ভরে।
সমাজে নারীর অধিকারের তরে
গিয়েছেন ঈশ্বরচন্দ্র লড়ে। 

পাদটীকা: পন্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর ছিলেন বাংলার নবজাগরণের পুরোধা ব্যক্তিত্ব এবং একজন সমাজ সংস্কারক। তৎকালীন সময়ে বিধবা বিবাহ ও স্ত্রীশিক্ষার প্রচলনকারী, একই সাথে বহুবিবাহ ও বাল্য বিবাহের মতো সামাজিক অভিশাপ দূরীকরণে অক্লান্ত সংগ্রাম করে গেছেন আর একারণেই যথোচিত শ্রদ্ধার সঙ্গে তাঁকে আমাদের স্মরণে রাখা উচিত।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর; শ্লোক - ৪৬৪


মহাত্মা গান্ধী; শ্লোক - ৪৬৩

স্বাধীনতার লক্ষ্যে ব্রিটিশ বিরোধী
আন্দোলন ডাক; অতঃপর সন্ধি।
ভালোবেসে সবাই মহাত্মা ডাকে,
তিনি মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী।

পাদটীকা: ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনের অহিংসবাদী নেতা মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর প্রকৃতার্থেই মহান আদর্শিক মানুষ ছিলেন, আর এ কারণেই তিনি বিশ্বব্যাপী মহৎ হৃদয়বান নেতা হিসেবে স্বীকৃত।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

মহাত্মা গান্ধী; শ্লোক - ৪৬৩


বাঙাল রাজনীতিক; শ্লোক - ৪৬২

বাঙাল রাজনীতিকেরা
কথায় কথায় মারে চাপা।
তোমার ভোটে জয় যুক্ত
তোমার বুকেই রাখবে পা। 

পাদটীকা: যে রাষ্ট্র ব্যবস্থায় নীতিহীনেরা রাজনীতির হাল ধরে, সে রাষ্ট্রের মানুষের দূর্ভোগের সীমানা অসীম।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

বাঙাল রাজনীতিক; শ্লোক - ৪৬২


তিন বাঙাল; শ্লোক - ৪৬১

যদি থাকে তিন বাঙাল;
এক জন এ দলে, অন্য জন ও দলে।
তৃতীয় জন সুবিধাবাদী
সুবিধার আশ্বাস পেলেই নামে জলে।

পাদটীকা: শুরু থেকেই বাঙালদের মাঝে সাম্যের অভাব, বিভক্ত বংশ পদবীতে, বিভক্ত বিশ্বাসের বিষে, এপার-ওপারে বিভক্তির শেষে বিভক্ত ভিন্ন নাগরিকত্বে। এর মাঝে এক শ্রেণী সুবিধাবাদী, যেখানে স্বার্থের মুলা, সেখানেই পাতে কুলা। বাঙাল কেবল মাত্র তখনই এক ছাতার নীচে অবস্থান করে যখন কোন অবাঙালী শিলা বৃষ্টি নিক্ষেপ করে, এরপর পুনরায় যে যার অবস্থানে।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

তিন বাঙাল; শ্লোক - ৪৬১



বাঙাল চরিত্র; শ্লোক - ৪৬০

বাঙাল বোঝে কম
বলে বেশি।
মগজ খাটায় কম
শক্ত পেশী। 

পাদটীকা: কোন কোন ব্যক্তি বিষয়বস্তু না বুঝেই কথা বলে এবং বুদ্ধিহীনতার পরিচয় দেয়, অপর পক্ষে গায়ের জোড়েই নিজেকে শ্রেষ্ঠ হিসেবে দাবি করে।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

বাঙাল চরিত্র; শ্লোক - ৪৬০

পরিসংখ্যান