বাঙাল জন্ম; শ্লোক - ৪৫৯

বাঙাল হয়ে না জন্মালে জানা হতো না
বাঙাল বড়ই নির্বোধ জাতি!
জ্ঞানী সংখ্যালঘু; জননেতা মাথা মোটা
চামচারা ফুলায় বুকের ছাতি।

পাদটীকা: বাঙাল হিসেবে গর্ব করার মত যেমন অনেক বিষয় আছে, তেমনি আমাদের অনুতাপের তালিকাটাও বেশ লম্বা। এখানে বাঙাল জ্ঞানী গুণী জনেরা সংখ্যালঘু, আর নির্বোধেরা সংখ্যাগুরু। এই সংখাগুরুদের নিয়ন্ত্রণ করেই রাজনীতির খেলা চলে।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

বাঙাল; শ্লোক - ৪৫৯


সুখ দুঃখ; শ্লোক - ৪৫৮

যে অনুভূতি আবেগ
আনন্দ যোগায় সেটাই হলো সুখ।
যে অনুভূতি আবেগ
ভোগায় ব্যথায় সেটাই হলো দুঃখ।

পাদটীকা: সুখ দুঃখ হলো অনুভূতি যা আমরা ইন্দ্রিয় দ্বারা উপলব্ধি করি। এর মাঝে একটি আনন্দদায়ক, অন্যটি বেদনা দায়ক।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

সুখ দুঃখ; শ্লোক - ৪৫৮


বঙ্গ দেশ; শ্লোক - ৪৫৭

বঙ্গ দেশের জনসংখ্যা কোটি কোটি
তন্মধ্যে মানুষ কিছু হাতে গোনা।
ক্ষমতাবানেরা সেথা পরজীবী কীট;
সে ভূমি উর্বর ফলায় শশ্য সোনা।

পাদটীকা: বাংলাদেশের জনসংখ্যার তুলনামূলক আলোচনায় দক্ষ জনশক্তি সেখানে অপর্যাপ্ত। সোনার বাংলার সোনা অযোগ্য রাজনীতিকের হাতে, দুর্নীতিবাজ ক্ষমতাবানদের দখলে।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

বঙ্গ দেশ; শ্লোক - ৪৫৭


পরিমাপক; শ্লোক - ৪৫৬

যার হাতে যেমন ফিতা
সবাইকে সে তেমন মাপেই মাপে।
যার চুলোয় যে আগুন
সে রুটি ছ্যাঁকে ঠিক তেমন তাপে।

পাদটীকা: মানুষ তার অতীত অভিজ্ঞতার আলোকে সমগোত্রীয় বা সাদৃশ্যময় কোন নতুন ব্যক্তি, বস্তু, বা বিষয় সম্পর্কে ধারণা করে থাকে।

আরিফুর রহমান, নরওয়ে।


মাপকাঠি; শ্লোক - ৪৫৬


পৌত্তলিক; শ্লোক - ৪৫৫

পশু কুরবানী ও পশু বলি
দুই মূলতঃ পৌত্তলিক বিষয়।
উভয় পন্থায় প্রাণীর হত্যা
ঈশ্বরকে সন্তুষ্টির লক্ষ্যে হয়।

পাদটীকা: যে ধর্ম মতে ঈশ্বর পশু বলীতে সন্তুষ্ট হন, সে ধর্ম পৌত্তলিক ধর্ম বৈ অন্য কিছু নয়।
- আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

পৌত্তলিক; শ্লোক - ৪৫৫


পরিষ্কার; শ্লোক - ৪৫৪

ময়লা জলে জিনিস ধুলে
কভু না হয় পরিষ্কার।
সুস্থ সমাজ গড়তে চাইলে
দুর্নীতি করো বহিষ্কার।

পাদটীকা: ক্ষমতার সুষম বন্টন এবং সুস্থ সমাজ গড়ার ক্ষেত্রে প্রধান প্রতিবন্ধকতা হলো দুর্নীতি। তাই সুন্দর সমাজ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চাইলে দূর্নীতি দমনের কোন বিকল্প নাই।
- আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

পরিষ্কার; শ্লোক - ৪৫৪


সর্প; শ্লোক - ৪৫৩

কোন কোন মানুষ দেখিতে সুন্দর;
আচরণে করে হৃদয় চূর্ণ।
কোন কোন সর্প দেখিতে সুন্দর;
কিন্তু দন্ত বিষে পরিপূর্ণ।

পাদটীকা: বাহ্যিক রূপ দেখে মানুষের বৈশিষ্ট্য বা সত্তার পরিচয় নির্ণয় করতে গেলে নির্ণয় ভুল হতে পারে। কোন কিছু দেখিতে সুন্দর, অর্থাৎ সুন্দর মানেই ভালো, এমন ভাবনার ফল সর্বদা সঠিক নাও হতে পারে।
- আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

সর্প; শ্লোক - ৪৫৩


অবতার; শ্লোক - ৪৫২

চোখে যা দেখছো তা
আমি নই, আমার অবতার।
আত্মার মাঝে অস্তিত্ব,
সেটাই আমি, নাই আকার।

পাদটীকা: আত্মা হল আমাদের সত্তা, চেহারা আমাদের বাহ্যিক রূপ মাত্র। মানুষের বাহ্যিক রূপ দৃশ্যমান, তবে মানুষের সত্তার বা প্রবৃত্তির প্রকাশ পায় মানুষের কর্মে এবং আচরণে।
- আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

অবতার; শ্লোক - ৪৫২


গুণীর গান; শ্লোক - ৪৫১

সময়ের স্রোতে
রূপ হারিয়ে যায়।
গুণীর জয়গান
সবে যুগ যুগ গায়।

পাদটীকা: বয়সের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের শারীরিক সৌন্দর্য বা শক্তি হারিয়ে যেতে পারে, তবে তার জীবদ্দশার সম্পাদিত কর্মের কথা গল্প হয়ে যুগ যুগ বেঁচে থাকে এবং গুণী ব্যক্তির গুণকীর্তন মানুষের মুখে মুখে চর্চিত হতে থাকে।
- আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

গুণীর গান; শ্লোক - ৪৫১


জন্মের কারণ; শ্লোক - ৪৫০

মানুষের জন্ম সূচনায়
নর নারীর যৌথ কারণ।
নর করে শুক্রাণু দান
নারী করে গর্ভে ধারণ। 

পাদটীকা: পৌরাণিক গল্প কাহিনী ব্যতিত, বাস্তবে নারী কখনোই পুরুষের শুক্রাণু ব্যাতিত গর্ভধারণ করতে পারে না। পুরুষের শুক্রাণু সহিত নারীর ডিম্বাণুর মিলন তথা নারীর অবদান ব্যতিত তা মানব শিশু রূপে ভূমিষ্ট হতে পারে না। মানব শিশুর জন্মে নর ও নারী উভয় পক্ষের ভূমিকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।
- আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

জন্মের কারণ; শ্লোক - ৪৫০


কারণ; শ্লোক - ৪৪৯

অকারণে না জ্বলে আগুন
না ওঠে কখনো ধোঁয়া।
হিংসা বিবাদ কারণেই হয়
স্বার্থে লাগিলে ছোঁয়া।

পাদটীকা: সব প্রতিক্রিয়া সৃষ্টির পিছনে এক বা একাধিক ক্রিয়া বা কারণ নিহিত থাকে। অকারণে সাধারণত কখনো কিছুই ঘটে না। 
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

ধোঁয়া কারণ; শ্লোক - ৪৪৯


করোনাভাইরাস; শ্লোক - ৪৪৮

ছোঁয়াচে ভাইরাস না দেখে
বর্ণ ধরম জাতি।
মানুষ থেকে মানুষে ছড়ায়
বড্ড প্রাণ ঘাতী।

পাদটীকা: করোনাভাইরাস মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হয়। ২০২০ সালে বিশ্ব জুড়ে লক্ষাধিক ব্যক্তি এর কারণে প্রাণ হারিয়েছেন।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

করোনাভাইরাস; শ্লোক - ৪৪৮

উপলব্ধ; শ্লোক - ৪৪৭

আসন্ন সময়,
সুখ বা দূঃখ অদৃশ্য হয়;
বিগত হলেই,
কষ্ট, ব্যথা উপলব্ধ ময়।

পাদটীকা: ভবিষ্যত কাল কেমন হবে তা আমরা শত ভাগ নিশ্চিত হয়ে বর্ণনা করতে পারি না, তবে ধারণা করতে পারি। ভবিষ্যত কাল যখন বর্তমানে আগত হয়ে অতীতে বিগত হয়, কেবল তখনই আমরা পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে তার বর্ণনা করতে পারি।
আরিফুর রহমান, নরওয়ে।

উপলব্ধ; শ্লোক - ৪৪৭


পরিসংখ্যান